আদমদীঘি রামপুরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে জলাবদ্ধতা


আদমদীঘি (বগুড়া) প্রতিনিধি : বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলার রামপুরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠ বৃষ্টির পানি জমে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়েছে। ফলে শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের বিদ্যালয়ে আসা, যাওয়া, খেলাধুলা ও চলাফেরায় ভোগান্তি চরম আকার ধারণ করেছে। অবিলম্বে বিদ্যালয় মাঠে জমে থাকা পানি নিস্কাশনের ব্যবস্থা জরুরি বলে ভুক্তভোগি মহল মনে করেন।

আদমদীঘি উপজেলা সদর ইউনিয়নের রামপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়টি ১৯১৪ সালে স্থাপিত হয়। বর্তমানে ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষকসহ ৫ জন শিক্ষক শিক্ষিকা ও দেড় শতাধিক ছাত্র-ছাত্রী রয়েছে। পড়াশোনার পাশাপাশি ছাত্র-ছাত্রীদের খেলাধুলার জন্য রয়েছে একটি বড় মাঠ। এই মাঠে খেলাধুলা ছাড়াও নিয়মিত এ্যাসিমব্লি অনুষ্ঠিত হয়। বর্ষার মৌসুমে এ মাঠের চারপাশে বৃষ্টির পানি জমে সম্পন্ন মাঠে পানি জমে সয়লাব হয়ে গেছে। পানি নিস্কাশনের কোন ড্রেনেজ ব্যবস্থা না থাকায় এই স্কুল মাঠে বর্তমানে হাটু পানি জমে রয়েছে। জমে যাওয়া পানিতে স্কুলে যাতায়াতের রাস্তাও নষ্ট হতে চলেছে। ছাত্রছাত্রীদের খেলাধুলার পরিবর্তে এখন এক ঝাঁক হাঁসকে খেলাধুলা করতে দেখা যায়। এই স্কুল মাঠ স্থায়ী জলাবদ্ধতার কারনে বিদ্যালয়ের পরিবেশ নষ্ট হচ্ছে এবং শিক্ষক ও শিক্ষার্থিদের বিদ্যালয়ে আসা, যাওয়া, এ্যাসিব্লি, খেলাধুলা ও চলাফেরায় ভোগান্তি চরম আকার ধারণ করেছে। বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক তপতী রানী পাল জানান, বিদ্যালয়ের মাঠে জলাবদ্ধতা থাকায় কোমলমতি শিক্ষার্থীরা এ্যাসিমব্লি ও খেলাধুলা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। স্কুলে আসা যাওয়াতে বিড়ম্বনায় পড়তে হচ্ছে। বিষয়টি উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হয়েছে। বিদ্যালয় ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি শ্রী লোকনাথ জানান, আগে স্কুল মাঠের পানি নিস্কাশনে ড্রেনেজ ব্যবস্থা ছিল সুন্দর। কয়েক বছর আগে গ্রামের কিছু ব্যক্তি মাটি ভরাট করে সেই ড্রেনটি বন্ধ করে দিয়েছেন। স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের ড্রেনেজ ব্যবস্থা পুনরায় স্থায়ী ভাবে চালু করার জন্য জানানো হয়েছে। উপজেলা শিক্ষা অফিসার শামছুল ইসলাম দেওয়ান জানান, স্কুলের মাঠে জলাবদ্ধতার বিষয়টি জানার পর কিছু অর্থ বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। স্কুল কর্তৃপক্ষ জলাবদ্ধতা দুর করতে ব্যবস্থা নিবেন।


Check Also

বগুড়ায় দেনার দায়ে ব্যবসায়ীর আত্মহত্যা

আদমদীঘি (বগুড়া) প্রতিনিধি : বগুড়ার আদমদীঘিতে দেনার চাপে বিধান বর্মন (৫০) নামের এক ব্যবসায়ী গলায় …

Leave a Reply

Your email address will not be published.