শিরোনাম

নওগাঁয় জমি নিয়ে বিরোধের জেরে প্রতিপক্ষের হামলায় আহত ৩


নওগঁ জেলা প্রতিনিধি : নওগাঁ সদর উপজেলার শিকারপুর ইউনিয়নের শৈলকোপা গ্রামে জমি নিয়ে বিরোধের জেরে প্রতিপক্ষের হামলায় শিশুসহ তিনজন গুরুতর আহত হয়েছেন। আহতরা হলেন- ওই গ্রামের আমিনুল ইসলাম সাইফুল (৫৫), শিরিনা বেগম (৫০) ও চাঁদনী (১২)। আহতরা সবাই নওগাঁ সদর হাসপালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

মঙ্গলবার (৫ জুলাই) এঘটনায় আহত আমিনুল ইসলাম সাইফুলের ভাই একরামুল হক পলাশ বাদী হয়ে নওগাঁ সদর মডেল থানায় ৫ জনকে আসামী করে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। অভিযুক্তরা হলেন একই গ্রামের রফিকুল ইসলাম (৪৫), বেলাল (৫০), সম্রাট (২৫), ইসলাম (৪৫) এবং মোস্তাক (৩৫)।

অভিযোগ এবং স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ওই গ্রামের রফিকুল গংদের সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে আমিনুল ইসলাম গংদের জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছে। গত রবিবার (৩জুলাই) বিকেলে প্রতিপরা আমিনুলদের পৈতিক জমি জবরদখলের চেষ্টা করে। খবর পেয়ে আমিনুল ইসলাম, তার স্ত্রী শিরিনা বেগম এবং নাতনী চাঁদনীকে সাথে নিয়ে জমিতে গেলে প্রতিপক্ষরা পিটিয়ে হাত ভেঙে দেন। স্বামীকে রক্ষা করতে গিয়ে হামলার শিকার হন তার স্ত্রী এবং নাতনী। প্রতিপক্ষরা তাদেরকেও বেধরক মারপিট এবং শ্লীলতাহানী করেন।

নওগাঁ সদর হাসপালে চিকিৎসাধীন আহত আমিনুল ইসলাম বলেন, প্রতিপক্ষরা তাদের পৈতিক জমি জবরদখলের চেষ্টা করছে। বাধা দিলে পিটিয়ে তার হাত ভেঙে দিয়েছে। তার স্ত্রী এবং নাতনীকেও মারপিট এবং শ্লীলতাহানী করেছে। স্থানীয়দের সহায়তায় তাদের উদ্ধার করে নওগাঁ সদর হাসপালে ভর্তি করা হয়েছে।

শিকারপুর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান কাজী রুকুনূজ্জামান রুকু ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আহতরা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। ভুক্তভোগী পরিবারকে আইনের আশ্রয় নিতে বলা হয়েছে। তাদের সব ধরনের সহযোগিতা করা হবে।

নওগাঁ সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ নজরুল ইসলাম জুয়েল বলেন, এ বিষয়ে একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছিল। এ বিষয়ে মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।


Check Also

বিয়েতে রাজি নয় প্রেমিক, যা করল প্রেমিকা

বগুড়া ডেস্ক : প্রেমিক বিয়েতে রাজি না হওয়ায় অতিরিক্ত ঘুমের ওষুধ খেয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন …

Leave a Reply

Your email address will not be published.