শিরোনাম

বগুড়ায় তুচ্ছ ঘটনায় ইন্টার্ন চিকিৎসক ছুরিকাহত


স্টাফ রিপোর্টার : বগুড়ায় শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালের ইন্টার্ন চিকিৎসক ফাহিম রহমানকে (২৮) তুচ্ছ ঘটনায় ছুরিকাঘাত করেছে ঝাল মুড়ি বিক্রেতা। এঘটনায় পুলিশ একজনকে আটক করেছে। আজ বুধবার সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার দিকে শজিমেক হাসপাতালের ২নং গেটের সামনে ঘটনা ঘটে। ফাহিম রহমান ২৫তম ব্যাচের ইন্টার্ন চিকিৎসক ও ঢাকার সবুজবাগের নুর মোহাম্মাদের ছেলে। তিনি বর্তমানে শজিমেক হাসপাতালে ভর্তি আছেন।

স্থানীয়রা জানান, ইন্টার্ন চিকিৎসক ফাহিম বুধবার সন্ধ্যার পর বন্ধুদের সাথে শজিমেক হাসপাতালের ২ নম্বর গেটে আড্ডা দিচ্ছিলেন। এসময় তারা ফরিদ ব্যাপারীর দোকানে ঝাল-মুড়ি খেতে যান। একপর্যায়ে তুচ্ছ বিষয় নিয়ে দোকানী সাথে চিকিৎসক ফাহিমের বাকবিতন্ডা শুরু হয়। এতে প্তি হয়ে দোকানীর ছেলে শাকিল তার হাতে থাকা পেয়াজ কাঁটার চাকু দিয়ে চিকিৎসক ফাহিমের পেটে আঘাত করে পালিয়ে যান।

বগুড়া শজিমেক শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ও চিকিৎসক ফাহিমের সহপাঠী ডাঃ মোফাজ্জল হোসেন রনি জানান, তুচ্ছ ঘটনায় ফাহিমকে ছুরিকাহত করা হয়েছে। বর্তমানে তার চিকিৎসা চলছে। আমরা চাই জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতার করা হোক।

বগুড়া সদর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আব্দুর রহিম জানান, এ ঘটনায় ঝাল মুড়ি বিক্রেতক ফরিদ ব্যাপারীকে (৫৫) আটক করা হয়েছে। তার ছেলে শাকিল হোসেন (২৫) পলাতক আছেন।


Check Also

বগুড়ায় দুইদিনের রিমান্ড শেষে আইনজীবী সহকারীকে কারাগারে প্রেরণ

কোর্ট রিপোর্টার : বগুড়ায় আদালতের সামনে পুলিশের কাজে ইচ্ছাকৃত বাঁধা ও আঘাত দানের মামলায় এমরান …

Leave a Reply

Your email address will not be published.