শিরোনাম

বগুড়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় স্বামী-স্ত্রীর মৃত্যু : ছেলেসহ আহত ২


শাজাহানপুর (বগুড়া) প্রতিনিধি : বগুড়ার শাজাহানপুরে যাত্রীবাহি বাসের ধাক্কায় সিএনজি চালিত অটোটেম্পু যাত্রী স্বামী ও স্ত্রী নিহত হয়েছেন। এসময় ১৬ বছর বয়সী তাদের এক ছেলেসহ অপর এক যাত্রী গুরুতর আহত হয়েছেন।

নিহতরা হলেন, মাদারীপুর জেলার ডালচিনি উপজেলার উত্তর রমজানপুর গ্রামের আলাউদ্দিন বেপারীর ছেলে কেরামত হোসেন (৪৮) ও তার স্ত্রী মিনারা রহমান (৩৮)। আহতরা হলেন, নিহত কেরামত হোসেনের ছেলে মুনতাসির মাহির (১৬) এবং শাজাহানপুর উপজেলার মাঝিড়া এলাকার বাসিন্দা আবু হাসান (২৫)। নিহত কেরামত হোসেন বগুড়া ক্যান্টনমেন্টের এমইএস ইউনিটে পাইপ ফিটার পদে বেসামরিক কর্মচারী হিসেবে কর্মরত ছিলেন। চাকরীর কারণে তিনি মাঝিড়া এলাকায় স্বপরিবারে বাসা ভাড়া নিয়ে থাকতেন। এঘটনায় আজ শনিবার দুপুরে নিহত কেরামত হোসেনের ভাই মামুন হোসেন বাদি হয়ে শাজাহানপুর থানায় মামলা দায়ের করেছেন।

হাইওয়ে পুলিশ ক্যাম্পের এস আই বাবুল মিয়া জানান, শুক্রবার দিবাগত রাত সাড়ে ৯টার দিকে কেরামত হোসেন তার স্ত্রী ও ছেলেকে নিয়ে বগুড়া শহর থেকে সিএনজিচালিত অটোটেম্পুযোগে মাঝিড়ার দিকে যাচ্ছিলেন। পথিমধ্যে শাজাহানপুরের লিচুতলা দ্বিতীয় বাইপাস এলাকায় পৌঁছিলে ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা রংপুরগামী আগমনী পরিবহন নামে একটি যাত্রীবাহি বাসের সাথে ধাক্কা লাগে। এসময় অটোটেম্পুর ৪ জন যাত্রী গুরুতর আহত হন। স্থানীয়রা গুরুতর আহত অবস্থায় তাদেরকে উদ্ধার করে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে গেলে সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসক কেরামত হোসেনকে মৃত ঘোষণা করেন। এরপর রাত পৌনে ১২টার দিকে কেরামত হোসেনের স্ত্রী মিনারা রহমানও মারা যান। আহত অপর দুইজন হাসপাতালে চিকিৎসাধিন রয়েছেন। নিহত কেরামত হোসেন বগুড়া ক্যান্টনমেন্টের এমইএস ইউনিটে পাইপ ফিটার পদে বেসামরিক কর্মচারী হিসেবে কর্মরত ছিলেন বলে তার কাছে পাওয়া পরিচয় পত্র থেকে জানা গেছে।

হাইওয়ে পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ জয়নাল আবেদীন জানান, বাসটি থানায় আটক রয়েছে। তবে বাসের চালক ও হেলপার পলাতক রয়েছে। এঘটনায় নিহত কেরামত হোসেনের ভাই মামুন হোসেন বাদী হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছেন।


Check Also

বগুড়ায় নিখোঁজের সাত দিন পর স্কুলছাত্রের লাশ উদ্ধার

শাজাহানপুর (বগুড়া) প্রতিনিধি : বগুড়ার শাজাহানপুরে ৭ দিন পূর্বে নিখোঁজ হওয়া স্কুল ছাত্র বুলবুল হোসেন …

Leave a Reply

Your email address will not be published.