শিরোনাম

বাজারে নতুন বিলাসবহুল বাইক আনল বিএমডব্লিউ


বগুড়া ডেস্ক : বিশ্বের নাম করা ব্র্যান্ড বিএমডব্লিউ বাজারে নতুন বিলাসবহুল বাইক এনেছে। বাইকটির মডেল জি-৩১০ আরআর। শুক্রবার (১৫ জুলাই) দুপুরে ভারতে লঞ্চ হলো বাইকটি। একই দিনে এ বাইক বিক্রি শুরু হয়েছে দেশটিতে। লঞ্চের আগেই এ বাইক সম্পর্কে প্রায় সব তথ্য প্রকাশ হয়। আগেই টুইটারে একটি ভিডিও প্রকাশ করে নতুন মোটরসাইকেল লঞ্চের খবর নিশ্চিত করেছিল বিএমডব্লিউ।

বিএমডব্লিউ জি-৩১০ আরআর মডেলে থাকছে ৩১২.২ সিসির লিকুইড কুলড ইঞ্জিন। তবে এ ইঞ্জিনে পৃথক টিউনিং করতে পারে বিএমডব্লিউ। ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ১৬০ কিলোমিটার গতিতে ছুটবে বাইকটি। এতে থাকছে ট্রাই কালার প্যাটার্ন। সেখানে কোম্পানির সিগনেচার লাল ও নীল রং দেখা গেছে। সঙ্গে রয়েছে সাদা রঙের সমন্বয়।

টিভিএস অ্যাপাচি আরআর ৩১০ থেকে এ মোটরসাইকেল অনুপ্রাণিত। সেই বাইকের সঙ্গে নতুন বিএমডব্লিউ বাইকের ডিজাইনে তেমন পার্থক্য চোখে পড়েনি। এ বাইকের ফ্রেমে লাল রঙে দেখা যাবে। এ ছাড়াও থাকছে কালো রঙের অ্যালয় হুইল। এ বাইকে সাদা মনোশক দেখা গেছে। ডিজাইনের সঙ্গেই এ বাইকে একই ইঞ্জিন ব্যবহার করবে বিএমডব্লিউ। সঙ্গে থাকবে একই ট্রান্সমিশন। অ্যাপাচির মতোই এ বাইকেও ভার্টিকাল ইনস্ট্রুমেন্ট ক্লাস্টার থাকছে।

বিএমডব্লিউ জি ৩১০ আরআরে থাকবে ৩১২ দশমিক ২ সিসি লিকুইড কুলড ইঞ্জিন। তবে এ ইঞ্জিনে পৃথক টিউনিং করতে পারে বিএমডব্লিউ। অ্যাপাচি আরআর ৩১০ মডেলে সর্বোচ্চ ৩৪ পিএস শক্তি ও ২৭ দশমিক ৩ এনএম টর্ক পাওয়া যায়। তবে রেইন ও আর্বান মোডে চালালে এ বাইকের পারফর্মেন্স কিছুটা কমে যায়। সেক্ষেত্রে ২৫ দশমিক ৮ বিএইচপি শক্তি ও ২৫ এমএম টর্ক পাওয়া যায়।

যদিও অ্যাপাচি আরআর ৩১০ ও  বিএমডব্লিউ জি ৩১০ আরআরে সর্বোচ্চ গতি ও অ্যাকসিলারেশনে কোনো পার্থক্য থাকার সম্ভাবনা কম। মাত্র ৭.১৭ সেকেন্ডে ০-১০০ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টা বেগে ছুটবে এ বাইক। সর্বোচ্চ ১৬০ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টা বেগে ছুটবে বাইকটি। সামনে ৩০০ এমএম ও পেছনে ২৪০ এমএম ডিস্ক ব্রেক থাকবে। সব মডেলেই থাকবে ডুয়াল চ্যানেল এবিএস।


Check Also

ঘূর্ণন গতি বেড়েছে পৃথিবীর, দুশ্চিন্তায় মহাকাশ বিজ্ঞানীরা

বগুড়া ডেস্ক : সম্প্রতি পৃথিবী তার ঘূর্ণন গতি বাড়িয়েছে বলে জানিয়েছেন মহাকাশ বিজ্ঞানীরা। ২৪ ঘণ্টারও …

Leave a Reply

Your email address will not be published.