শিরোনাম

মায়ের জন্য পাত্র খোঁজা নিয়ে যা বলে ইসলাম


ধর্ম ডেস্ক : বাবা মারা গেছেন বছর দুয়েক আগে। বাবার মৃত্যুর পর মা অনেকটা একা হয়ে পড়েছেন। দুই ছেলে মাকে যথেষ্ট সময় দিতে পারেন না। তবে তারা মাকে বাকিটা জীবন ভালো রাখতে চান। তাই মায়ের সম্মতি নিয়ে তার জন্য পাত্র খুঁজছেন তারা। এ জন্য ফেসবুক পেজে বিজ্ঞপ্তি দেওয়া হয়েছে। সম্প্রতি এ ধরনের একটি পোস্ট ভাইরাল হয়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। মায়ের জন্য ফেসবুকে সন্তানের পাত্র খোঁজার এমন অভিনব পোস্ট সাড়া ফেলেছে পুরো দেশে। যা নিয়ে চলছে আলোচনা ও সমালোচনা।

কিন্তু প্রশ্ন উঠেছে, বিধবা বা তালাকপ্রাপ্ত নারীকে কি আবারও বিয়ে দেয়া যায়? বিশেষ করে মায়ের জন্য কি সন্তান পাত্র খুঁজতে পারেন? সেক্ষেত্রে ইসলাম কি বলে? এ প্রসঙ্গে ইসলামী চিন্তাবিদ শায়খ আহমাদুল্লাহ বলেন, বিধবা, তালাকপ্রাপ্ত বা স্ত্রী হারা যে কাউকে বিয়ে দেয়ার উদ্যোগ নেয়া নিঃসন্দেহে একটি ভালো উদ্যোগ। এটি ইসলাম সম্মত। নবীজিও এটি পছন্দ করতেন।

শায়খ আহমাদুল্লাহ বলেন, সঙ্গীহারা অবস্থায় বাকি জীবন কাটানো বেশ কষ্টের। এটা আমাদের সমাজের অনেকেই বুঝতে চান না। সন্তানদের উচিত বাবা-মা এমন অবস্থায় বিয়ে করতে চাইলে, তাদের অনাপত্তি না থাকলে বিয়ে দেয়ার উদ্যোগ নেয়া। এক্ষেত্রে বলা যায়, কেরানীগঞ্জের অপূর্ব আমাদের জন্য আদর্শ হতে পারে।

সন্তানের জন্য সব কিছু উজাড় করা মা-বাবা যখন সঙ্গী হারিয়ে নিঃসঙ্গতায় ভোগেন, তখন তাদের নিঃসঙ্গতা দূরের উদ্যোগ নেয়াই প্রকৃত সন্তানের কাজ। সেক্ষেত্রে অপূর্বের নেয়া উদ্যোগটি সন্দেহাতীতভাবে ভালো হলেও মায়ের ছবি জনসম্মুখে প্রকাশ করার ধরনটি কিছুটা ইসলাম সম্মত নয় বলেও মন্তব্য করেন এ ইসলামী চিন্তাবিদ।

তিনি বলেন, মায়ের বিয়ের জন্য ছবিসহ পাত্র চেয়ে পাবলিকলি পোস্ট করা উচিত হয়নি। এটা ইসলাম সম্মত নয়। তবে তালাকপ্রাপ্ত, বিধবা কিংবা স্ত্রী হারা ব্যক্তিদের বিয়ের উদ্যোগটিকে আমরা স্বাগত জানাতে পারি।


Check Also

মক্কায় পবিত্র কা’বা ঘরের গিলাফ পরিবর্তন

ধর্ম ডেস্ক : সৌদি আরবের মক্কায় ১ মুহাররম নতুন আরবি বছরের জন্য পবিত্র বায়তুল্লাহ কা’বার …

Leave a Reply

Your email address will not be published.